দুপুর ২:৩৪ বুধবার ১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আপনার সংবাদ

জাঁকজমকপূর্ণভাবে ডিস্ট্রিবিউটরস মিট আয়োজন করলো শাওমি বাংলাদেশ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি :
[ঢাকা, ১৬ মে, ২০২৪] সারাদেশের ডিস্ট্রিবিউটর এবং পার্টনারদের নিয়ে কম্পাস বাংলাদেশ নামে ডিস্ট্রিবিউটরস মিট আয়োজন করল শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি কোম্পানি শাওমি বাংলাদেশ। অনুষ্ঠানটির এবারের থিম ছিল “ভয়েজ টু ভিক্টরি”, যেখানে সহযোগিতা এবং অংশীদারিত্বের মাধ্যমে বাংলাদেশে নিজেদের সাফল্যকে এগিয়ে নিতে শাওমির প্রতিশ্রুতির প্রতিফলন হয়। সম্প্রতি কক্সবাজারের পাঁচ তারকা হোটেল মানের হোটেল সি পার্ল বিচ রিসোর্টে অনুষ্ঠানটি আয়োজন করা হয়।
তিনদিন ব্যাপী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীদেরকে জন্য ছিল ইন্টারঅ্যাকটিভ সেশন, তথ্যবহুল প্রেজেন্টেশন এবং নেটওয়ার্কিং-এর সুযোগ। একইসাথে অনুষ্ঠানে শাওমি বাংলাদেশের সাথে তাদের অংশীদারিত্ব এবং গ্লোবাল টেক ব্র্যান্ডেটির অগ্রগতি উদযাপন করেন অংশগ্রহণকারীরা।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কোম্পানির যাত্রা এবং বাংলাদেশে তাদের ভবিষ্যত পরিকল্পনা তুলে ধরেন শাওমির গ্লোবাল ভাইস প্রেসিডেন্ট জনাব অ্যালভিন টিএসই এবং ইন্টারন্যাশনাল বিজনেসের (বিএনএস) হেড জনাব ভিজেন্দার চৌহান। এছাড়া অনুষ্ঠানটি আরও প্রাণবন্ত করতে উপস্থিত ছিলেন জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব ।
কাউন্টারপয়েন্ট রিসার্চের বাংলাদেশ হ্যান্ডসেট শিপমেন্ট ট্র্যাকারের তথ্য অনুসারে, ২০২৩ সালের চতুর্থ প্রান্তিক থেকে ২০২৪ সালের প্রথম প্রান্তিক পর্যন্ত বাংলাদেশের এক নম্বর হ্যান্ডসেট ব্র্যান্ডের স্বীকৃতি পায় শাওমি। এই মাইলফলক অর্জনে অনুষ্ঠানে পার্টনার এবং গ্রাহকদের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে কোম্পানিটি।
অনুষ্ঠানে শাওমি বাংলাদেশের কান্ট্রি হেড জনাব জিয়াউদ্দিন চৌধুরী বলেন,”বাংলাদেশে শাওমির কার্যক্রমকে আরো এগিয়ে নিতে আমাদের পার্টনারদের উদ্দীপনা এবং নিষ্ঠার সাক্ষী হতে পারাটা অনুপ্রেরণাদায়ক। পার্টনার এবং ডিস্ট্রিবিউটরদের সাথে আমাদের সম্পর্ক আরও শক্তিশালী করতে এবং একটি উজ্জ্বল ভবিষ্যতের দিকে একসাথে এগিয়ে যেতে এই ডিস্ট্রিবিউটরস মিট বিশেষ ভূমিকা পালন করবে।“
সারা দেশ থেকে প্রায় ২০০ জন সম্মানিত পার্টনার এই বিশেষ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন। জনপ্রিয় শিল্পীদের পরিবেশনায় দৃষ্টিনন্দন সাংস্কৃতিক ও সঙ্গীতানুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানটি শেষ হয়।
শাওমি সম্পর্কেঃ
শাওমি কর্পোরেশন (“Xiaomi”) ২০১০ সালের এপ্রিল মাসে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ২০১৮ (১৮১০.এইচকে) এ হংকং স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান বোর্ডে তালিকাভুক্ত হয়। শাওমি হল একটি কনজিউমার ইলেকট্রনিক্স এবং স্মার্ট ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি। শাওমি ১৭ জুলাই ২০১৮ সালে বাংলাদেশের নিজেদের অফিসিয়াল কার্যক্রম শুরু করে এবং বর্তমানে শাওমি বাংলাদেশের একটি শীর্ষস্থানীয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *